নারায়ণগঞ্জ মহানগরীরনারায়ণগঞ্জ মহানগরীর বিজয় র‍্যালি অনুষ্ঠিত।

Back to Blog

নারায়ণগঞ্জ মহানগরীরনারায়ণগঞ্জ মহানগরীর বিজয় র‍্যালি অনুষ্ঠিত।

দুর্নীতিমুক্ত আদর্শ ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠাই ছিলো বিজয়ের অঙ্গীকার
—————————কেন্দ্রীয় সভাপতি

মুহতারাম কেন্দ্রীয় সভাপতি ইলিয়াস আহমদ বলেন,১৯৭১ সালের এই দিনে বাংলার সূর্য সন্তানরা পাকিস্তানী জুলুমবাজ সরকার থেকে এ জাতীর বিজয় ছিনিয়ে এনেছিল। তাদের স্বপ্ন ছিলো বাংলার সবুজ জমিনে স্বাধীন, দুর্নীতিমুক্ত ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা হবে। মানবিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হবে। সকল মানুষের অধিকার নিশ্চিত হবে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, বিগত ৪৬ বছরেও বিজয়ের সিংহভাগ লক্ষই অর্জিত হয়নি। আজো বাংলার বুকে স্বাধীনভাবে সত্য কথা বলা যায়না। অন্যায়ের প্রতিবাদ করলেই গুম,খুনের শিকার হতে হয়।

তিনি আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস বিকৃত করে নতুন প্রজন্মের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছ। ছাত্রদেরকে কৌশলে বিজয়ের সঠিক ইতিহাস থেকে দুরে রেখে মুক্তিযুদ্ধের ভুল ইতিহাস চর্চা করানো হচ্ছে।

আজ ১৬ ডিসেম্বর, শনিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মহান বিজয় দিবসে নারায়ণগঞ্জ মহানগরীর উদ্যোগে আয়োজিত বিজয় র‍্যালি পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

মহানগরী সভাপতি শাব্বীর আহমাদের সভাপতিত্বে উক্ত র‍্যালিতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ মহানগরী সভাপতি ডাঃ শরীফ মোহাম্মদ মোসাদ্দেক, সেক্রেটারি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক শাহ আলম, ছাত্র মজলিস ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি মুহাম্মদ তাইফুর রহমান।

জাহিদ হাসানের পরিচালনায় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাবেক শহর সভাপতি কামরুল হাসান পায়েল,খেলাফত মজলিসের নারায়ণগঞ্জ জেলা সহ-সেক্রেটারি নুর মুহাম্মদ খান,ছাত্র মজলিসের মহানগরী প্রচার ও স্কুল কার্যক্রম সম্পাদক মুহাম্মদ রিফাত ভূইয়া, ফতুল্লা থানা সভাপতি আব্দুল গণী, খানপুর শাখা সভাপতি আলমগীর হুসাইন, ১১ নং ওয়ার্ড সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলী, প্রমুখ। বিজয় র‍্যালি অনুষ্ঠিত।

দুর্নীতিমুক্ত আদর্শ ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠাই ছিলো বিজয়ের অঙ্গীকার
—————————কেন্দ্রীয় সভাপতি

মুহতারাম কেন্দ্রীয় সভাপতি ইলিয়াস আহমদ বলেন,১৯৭১ সালের এই দিনে বাংলার সূর্য সন্তানরা পাকিস্তানী জুলুমবাজ সরকার থেকে এ জাতীর বিজয় ছিনিয়ে এনেছিল। তাদের স্বপ্ন ছিলো বাংলার সবুজ জমিনে স্বাধীন, দুর্নীতিমুক্ত ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা হবে। মানবিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হবে। সকল মানুষের অধিকার নিশ্চিত হবে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, বিগত ৪৬ বছরেও বিজয়ের সিংহভাগ লক্ষই অর্জিত হয়নি। আজো বাংলার বুকে স্বাধীনভাবে সত্য কথা বলা যায়না। অন্যায়ের প্রতিবাদ করলেই গুম,খুনের শিকার হতে হয়।

তিনি আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস বিকৃত করে নতুন প্রজন্মের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছ। ছাত্রদেরকে কৌশলে বিজয়ের সঠিক ইতিহাস থেকে দুরে রেখে মুক্তিযুদ্ধের ভুল ইতিহাস চর্চা করানো হচ্ছে।

আজ ১৬ ডিসেম্বর, শনিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মহান বিজয় দিবসে নারায়ণগঞ্জ মহানগরীর উদ্যোগে আয়োজিত বিজয় র‍্যালি পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

মহানগরী সভাপতি শাব্বীর আহমাদের সভাপতিত্বে উক্ত র‍্যালিতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ মহানগরী সভাপতি ডাঃ শরীফ মোহাম্মদ মোসাদ্দেক, সেক্রেটারি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক শাহ আলম, ছাত্র মজলিস ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি মুহাম্মদ তাইফুর রহমান।

জাহিদ হাসানের পরিচালনায় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাবেক শহর সভাপতি কামরুল হাসান পায়েল,খেলাফত মজলিসের নারায়ণগঞ্জ জেলা সহ-সেক্রেটারি নুর মুহাম্মদ খান,ছাত্র মজলিসের মহানগরী প্রচার ও স্কুল কার্যক্রম সম্পাদক মুহাম্মদ রিফাত ভূইয়া, ফতুল্লা থানা সভাপতি আব্দুল গণী, খানপুর শাখা সভাপতি আলমগীর হুসাইন, ১১ নং ওয়ার্ড সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলী, প্রমুখ।

Share this post

Back to Blog